ক্রাইস্টচার্চের হামলায় আক্রান্তদের হজ করাবে সৌদি

ক্রাইস্টচার্চের হামলায় ঘটনায় আহতদের হজ করানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এছাড়া যারা এ হামলায় নিহত হয়েছেন তাদের পরিবার সুযোগ পাবে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শহিদ পরিবারকে সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ রাষ্ট্রীয় অতিথির মর্যাদায় হজ সম্পাদনের সুযোগ করে দেয়। এরই ধারাবাহিকতায় এ সুযোগ পাচ্ছে ক্রাইস্টচার্চে হামলার শিকার হওয়ারা।

এ হজ কার্যক্রম সম্পাদনের দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে সৌদি আরবের সেবা সংস্থা ‘রাবেতা আলম আল ইসলামি’। সংস্থাটি ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে শহিদ হওয়া পরিবারগুলোকে হজ করানোর পাশাপাশি ঘর বানিয়ে দেয়ারও ঘোষণা দিয়েছে।

এ বিষয়ে মুসলিম ওয়ার্ল্ড লীগের এক মুখপাত্র মাসহাব ইবান জানান, ‘শহিদদের পরিবার ও আহতদের জন্য আমরা হজ ঘোষণা করেছি। সঙ্গে সঙ্গে শহীদদের সব পরিবারকে বাড়ি বানিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, আমরা ক্রাইস্টচার্চে মুসলিম সম্প্রদায়ের মাঝে ঐক্য দেখতে চাই। এ জন্যই হামলায় আক্রান্ত সবাইকে হজ করানো হবে।

হামলায় আহতদের আগামী আগস্ট মাসে হজ করানো হবে। শারীরিক সমস্যার কারণে যারা এ বছর হজে যেতে পারবে না, আগামী বছর তাদের হজ করা হবে বলেও জানান রাবেতা কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে হামলায় ৫০ জন নিহত হয় এবং ১০০ জনেরও বেশি আহত হয়। এদের সবাইকেই হজ করাবেন সৌদি কর্তৃপক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *