‘ক্ষেপ’ বন্ধ করতে যাত্রীদের জন্য পয়েন্ট সিস্টেম চালু করলো পাঠাও

শেরপুর টুডে ডেস্কঃ মোবাইলভিত্তিক অ্যাপস দিয়েই রাইড শেয়ারিং হওয়ার কথা থাকলেও অনেক মোটরবাইক চালক অনলাইনের বদলে অফলাইনেই রাইড শেয়ার করে আসছেন। বাইক চালকদের অবৈধ এই কার্যক্রম পরিচিত পায় ‘ক্ষেপ’ নামে। এবার সেই ‘ক্ষেপ’ প্র্যাকটিস বন্ধ করতে যাত্রীদের জন্য পয়েন্ট সিস্টেম চালু করলো রাইড শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম পাঠাও।

যেসব যাত্রী অ্যাপস ব্যবহার করে রাইড শেয়ারিং সুবিধা নিবে তাদের জন্য ‘পাঠাও পয়েন্টস’ নামের নতুন একটি ব্যবস্থা চালুর ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। পাঠাও মনে করছে, নতুন এ ফিচারের ফলে যাত্রীরা অ্যাপস ব্যবহারে আরও উৎসাহিত হবে এবং কমে আসবে অফলাইন ট্রিপ।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, গ্রাহকদের সকল চাহিদাকে অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে ‘পাঠাও পয়েন্টস’ প্রোগ্রামটি তৈরি করা হয়েছে। এর মাধ্যমে গ্রাহকরা পাঠাও অ্যাপস ব্যবহার করে পয়েন্ট অর্জন করবেন এবং উপভোগ করবেন বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা। পাঠাও পয়েন্টসে গ্রাহকদের জন্য রয়েছে চার ধাপ বিশিষ্ট সদস্যপদ। সদস্যপদগুলো হচ্ছে যথাক্রমে ব্রোঞ্জ, সিলভার, গোল্ড এবং প্লাটিনাম নামে।

প্রোগ্রামে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সাথে সাথে ব্যবহারকারীরা পাঠাও প্লাটফর্মে খরচ হওয়া অর্থের বিপরীতে পয়েন্ট অর্জন করবেন। ২০০ পয়েন্ট অর্জন করার সঙ্গে সঙ্গে তারা ব্রোঞ্জ থেকে সিলভার সদস্য পদে চলে যাবেন স্বয়ংক্রিয়ভাবে। পয়েন্ট সংখ্যা এক হাজার হলে তারা পৌঁছে যাবেন গোল্ড সদস্য পদে এবং সাত হাজার পয়েন্ট হলে গ্রাহকরা পাবেন প্লাটিনাম সদস্যপদ।

যে পয়েন্টগুলি গ্রাহকরা অর্জন করবেন তার মাধ্যমে তারা পাঠাও এর সেবার ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রকার অফার উপভোগ করতে পারবেন। অফারগুলির মধ্যে রয়েছে প্রায়োরিটি সাপোর্ট, ভাল রেটিংযুক্ত ড্রাইভার প্রাপ্তির সুযোগ, নির্দিষ্ট ফুড অর্ডারে ফ্রি ডেলিভারি, প্রিমিয়াম সাপোর্ট হটলাইন এবং দুটি প্রিয় গন্তব্যের জন্য বিশেষ ভাড়া ব্যবহারের সুবিধা।

এ প্রসঙ্গে পাঠাওয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হুসেইন মো. ইলিয়াস বলেন, বাংলাদেশি স্টার্টআপ হিসেবে, পাঠাও এর ইউজার কমিউনিটি আমাদের যাত্রা পথের প্রধান অংশীদার। গ্রাহকরা আমাদেরকে সবসময় ভাল কিছু করার জন্য উৎসাহ প্রদান করে। এজন্য আমরা তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। আমরা সবসময় আমাদের গ্রাহকদের জন্য নিরলস কাজ করে চলেছি এবং আজকে তাদের জন্য পাঠাও পয়েন্টস ফিচার নিয়ে আসতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *