ময়মনসিংহ মেডিকে কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গুতে পাঁচ মাসের শিশুর মৃত্যু

ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জারিফ নামে পাঁচ মাস বয়সী এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার ভোর ৬টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ণ মজুমদার।

জারিফ ময়মনসিংহ সদরের শিকারীকান্দা এলাকার মো. আরিফ মিয়ার ছেলে। আরিফ মিয়া পরিবার নিয়ে গাজীপুরে বসবাস করেন।

ডা. লক্ষ্মী নারায়ণ মজুমদার জানান, শিশুটি ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে গাজীপুরের একটি ক্লিনিকে দুই দিন চিকিৎসাধীন ছিল। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার সেখানকার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জারিফকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলের আইসিইউতে রেফার করে। ছাড়পত্র নিয়ে ঢাকায় না গিয়ে জারিফকে তার পরিবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করে। শারীরিক অবস্থা দ্রুত খারাপ হওয়ায় শনিবার ভোর ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জারিফ মারা যায়।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে হাসপাতালে ১১০ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৫ জন। আর পাঁচ জন রোগী ছুটি নিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

এর আগে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চার জন ডেঙ্গু রোগী মারা যান। গত ১৯ আগস্ট দুপুর আড়াইটার দিকে মারা যান সেলিম (৩০) নামের এক চালক। তার বাড়ি নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলায়।

তার আগে ১১ আগস্ট সকালে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে মমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কিশোরগঞ্জের ইটনা ডিগ্রি কলেজের ছাত্র ফরহাদ (২০) মারা যান। এছাড়া ১৮ আগস্ট রাতে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যান রাসেল (৩৫) ও আনোয়ার (৪৬) নামে দুই রোগী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *